কিভাবে ব্লগে এসইও করবেন – How To Do SEO On Blogger

seo,how to write seo friendly article,how to do seo on blogger in hindi,on page seo,how to rank in google,how to write seo friendly article on wordpress,how to grow your blog traffic,how to write seo friendly article in blogger,blogger seo,seo tutorial,how to write a blog for seo,how to write a blog post seo,how to seo a blog post wiht yoast seo
Spread the love
কিভাবে ব্লগে এসইও করবেন – How To Do SEO On Blogger: হ্যালো বন্ধুরা, কিভাবে আপনি আপনার ব্লগে এসইও করবেন আজকের এই পোষ্ট থেকে সম্পূর্ন জানতে পারবেন । আপনি যদি সঠিক ভাবে আপনার ব্লগ এসইও না করেন তাহলে কখনওই আপনার ওয়েব অথবা ব্লগ সাইটটি র‌্যাঙ্ক করাতে পারবেন না । তাই অবশ্যই ব্লগ এসইও করতে হবে। তাই এই পোষ্টটি সম্পূর্ন পড়ুন আশা করি আপনার উপকার হবে ।

কিভাবে ব্লগে এসইও করবেন – Blogger SEO Bangla Tutorial

SEO Blog – ব্লগে এসইও করার সম্পূর্ন গাইট:

ডোমেইন: ব্লগ শুরু করার প্রথমে আপনাকে ভাবতে হবে আপনার ব্লগ অথবা ওয়েব সাইট এর নাম নিয়ে । আপনার ডোমেইন নাম এর উপর ৪০% এসইও নির্ভর করে যেমন ধুরুন আমার ব্লগ এর নাম banglatechblog.com মানুষ যখন গুগল এ গিয়ে টাইপ করবে Bangla Tech Blog তখন আমার এই সাইট কিন্তু এমনিতেই চলে আসবে হয়ত গুগল এর প্রথম পাতায় না আসলে ও পরের পাতায় আসবে যদি কোন পোষ্ট না থাকে তারপরও । কারন এখানের মেইন কিওয়ার্ড আর আমার ডোমেইন নাম হচ্ছে banglatechblog তাই ডোমেইন নেবার আগে অনেক যাচাই করে আপনার সাইট এর নাম নির্বাচন করুন।
  ব্লগের টাইটেল ও মেটাডেটা : ব্লগ তৈরীর সময় আপনার সাইটয়ের টাইটেলটি সুন্দরভাবে লিখুন এবং সাইটটির মেটাডেটা লিখুন ১৬০ ওয়ার্ড এর ভিতর যাতে গুগল পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারে আপনার সাইটটি কোন বিষয় এর উপর।
 সাইট ডিজাইন: আপনার সাইটটি অবশ্যই ভালোভাবে ডিজাইন করতে হবে। সাইট ডিজাইন করার সময় যে টেমপ্লেটটি ব্যবহার করবেন তা যেন ১০০% এসইও পূর্ন হয় অথাৎ সকল ডিভাইজ থেকে যেন ভালোভাবে দেখা যায়।বর্তমানে মোবাইল এর যুগ তাই যে টেমপ্লেটটি ব্যবহার করবেন তা যেন মোবাইল থেকে ভালোভাবে দেখা যায়। আপনার সাইটটি চেক করার জন্য এই লিঙ্ক প্রবেশ করুন
 লোডিং টাইম: লোডিং টাইম অনেক গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয় ধরুন একটি পোষ্ট আপনিও করছেন অন্য একজন ব্যক্তিও করেছে আপনার ওয়েব সাইট ঢুকতে সময় লাগল ৩০ সেকেন্ড আর ঐ ব্যক্তির সাইটে ঢুকতে ১৫ সেকেন্ড তাহলে ঐ ভিজিটর কিন্তু দ্বিতীয়বার আপনার সাইটয়ে ঢুকতে চাইবে না। তাই আপনার সাইট এর লোডিং টাইম কমানোর চেষ্টা করুন। লোডিং টাইম কমানোর জন্যও অন্যান্য কোডিং চেক করুন। আপনার সাইটটি চেক করার জন্যএই লিঙ্ক প্রবেশ করুন 
 মেনুবার: আপনার সাইটয়ের মেনু গুলো ভালভাবে সাজান যাতে ভিউয়ার সহজে বুঝতে পাওে কোন মেনুটা কি বিষয়ের উপর। আর প্রত্যেকটি মেনুর সাথে লেভেল বা ক্যাটাগরি সুন্দরভাবে লিঙ্ক করিয়ে দিন যাতে কোন ধরনের ইরর না আসে ।
 পোষ্ট করার নিয়ম: টাইটেল:প্রথমে টাইটেল নির্বাচন করার জন্য গুগল কিওয়ার্ড প্লানারব্যবহার করুন। গুগল কিওয়ার্ড প্লানার এর মাধ্যমে কম প্রতিযোগি কিওয়ার্ড নিয়ে টাইটেল বানান এতে আপনি দ্রুত আপনার সাইটটি র‌্যাঙ্ক করাতে পারবেন। আর খেয়াল রাখবেন আপনার টাইটেল এর মাঝে যেন মেইন কিওয়ার্ড থাকে। আর টাইটেলটি লং করবেন কারন লং টাইটেল বেশি র‌্যাঙ্ক করে। কাস্টম আপনি ব্লগে পোষ্ট করার আগে অটোমেটিক ব্যবহার না করে কাস্টম ব্যবহার করবেন যাতে ইউআরএলটি এসইও পূর্ন হয়। আর এই মাঝে যেন মেইন কিওয়ার্ড থাকে।
  মেটাডেটা: প্রতিটি পোষ্ট এর জন্য আলাদা মেটাডেটা তৈরী করুন মেটাডেটা যদিও আমরা পড়ি না এটি পড়ে গুগল। বেশিরভাগ মানুষ মেটাডেটা ব্যবহার করে না এটা হল সবচেয়ে বড় ভুল আপনার পোষ্ট র‌্যাঙ্ক করার জন্য তিনটি বিষয় সবচেয়ে কাজ করে টাইটেল, মেটাডেটা আর কাষ্টম ইউআরএল। তাই এটি ব্যবহার করতে ভুল করবেন না।
  ইমেজ alt tag: ইমেজ ব্যবহার করার সময় ইমেজ এর Alt Tag ব্যবহার করুন কারন গুগল এর রোবট ইমেজ দেখে না Alt Tag পড়ে বুঝে নেয় যে এটা কি ইমেজ। আরেকটা কথা আপনি যদি গুগল থেকে ছবি ব্যবহার করেন তাহলে অবশ্যই ছবিটি এডিট করে নিবেন।
 লিঙ্ক: আপনার পোষ্টএর ভিতর ইন্টারনাল লিঙ্ক তৈরী করুন আপনি একটা পোষ্ট এর সাথে আরেকটা পোষ্ট লিঙ্ক করাতে ভুলবেন না । ইন্টারনাল লিঙ্ক যত ভাল হবে আপনার পোষ্ট তত র‌্যাঙ্ক করবে।
 বোল্ট/ইটালিক: আপনার পোষ্টের মেইন কিওর্য়াড বোল্ট/ইটালিক করে দিন যাতে গুগল এর রোবট দ্রুত মেইন কিওর্য়াড খুজে পায়।
 সাইটম্যাপ: আপনি ব্লগে ৫টি পোষ্ট দেবার পর আপনার সাইটটিকে Google Webmaster Toolsসাবমিট করবেন এবং তার সাইটম্যাপ তৈরী করে দিবেন। আপনি যদি সাইটম্যাপ তৈরী না করেন তাহলে আপনার সাইটটি র‌্যাঙ্ক করবে না। তাই অবশ্যই সাইটম্যাপ তৈরী করে দিবেন।
 সোস্যাল মিডিয়া: আজকাল বেশিভাগ মানুষ যুক্ত থাকে সোস্যাল মিডিয়াতে তাই আপনার ব্লগের পোষ্ট সোস্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন। সোস্যাল মিডিয়া বলতে ফেসবুক, টুইটার না শুধু আপনি গুগল প্লাস এ বিভিন্ন গ্রুপ এ যুক্ত হন এবং সেখানে আপনার পোষ্ট শেয়ার করুন দেখবেন সেখান থেকে অনেক ভিসিটর পাবেন। এছাড়াও আপনি বিভিন্ন ফোরাম এ যুক্ত হয়ে সেথান থেকে অনেক ভিসিটর আনতে পারবেন।
 আশা করি কিভাবে ব্লগে এসইও করবেন এই পোষ্টটি আপনাদের উপকারে আসবে। পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন আর আপনার কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করুন।

One Comment on “কিভাবে ব্লগে এসইও করবেন – How To Do SEO On Blogger”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *